Header Ads

  • Latest Update

    আমার দেখা বাংলাদেশের প্রথম কোনো জারজ বিশ্ববিদ্যালয়।

    Prime University,আমার দেখা বাংলাদেশের প্রথম কোনো জারজ বিশ্ববিদ্যালয়।


    প্রাইম ইউনিভার্সিটিতে (fb.com/Primevarsity) মেয়েদের নিকাব পরে পর্দা করা নিষিদ্ধ!
    আমার বাসা থেকে খুব কাছে হওয়ায় গত সেমিস্টারে আমার ওয়াইফকে প্রাইম ইউনিভার্সিটির সিএসই ডিপার্টমেন্টে ভর্তি করি। নবীন বরণ অনুষ্ঠানে গিয়ে জানা যায় “ভার্সিটিতে অবস্থান করা অবস্থায় কোনো মেয়ে নিকাব পরে মুখ ঢাকতে পারবে না”! নিরাপত্তা বিঘ্নিত হবার ঠুনকো অযুহাতে ছাত্রীদের পোশাক নির্বাচনের স্বাধীনতা ও ইসলাম পালনে বাধা দেয়ার ঘটনাটি আমাদের কাছে নতুন!
    আমার ওয়াইফ নিকাব পরে পর্দা করেন। তাই ব্যাপারটা নিয়ে আমি ডিপার্টমেন্টের হেড, রেজিস্টার অফিস এবং সর্বশেষ ভরসা হিসাবে ভার্সিটির চেয়ারম্যান স্যারের সাথে দেখা করি। যখন চেয়ারম্যান স্যারের কাছে গিয়ে বললাম যে আমাদের রিলিজিয়াস ভিউয়ের জন্য নিকাব খুলে ভার্সিটি কন্টিনিউ করা সম্ভব না। তিনি স্থান-কাল-পাত্র ও তাঁর পদ মর্যাদার কথা ভুলে গিয়ে অত্যন্ত আপত্তিকার ভাষায় কথা বলা শুরু করলেন। এমন অসৌজন্যমূলক আচরণ একটা বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ দায়িত্বশীল ব্যক্তির কাছ থেকে কখনোই আশা করা যায় না। আলহামদুলিল্লাহ, আমি তাকে কোনো অমর্যাদাকর কথা বলি নি।
    তিনি বললেন “কোথায় পেয়েছেন মুখ ঢাকতে হয়? কোনো মানুষ মুখ ঢেকে চলে?”
    স্যার! আপনি কী বুঝাতে চাচ্ছেন? যারা মুখ ঢাকাকে পর্দার বিধান হিসাবে গণ্য করেন তারা মানুষ না?
    পরের কথা ছিল এমনঃ “আপনারা ভন্ডামি আর গুন্ডামি করার জন্য মুখ ঢাকার নিয়ম বানাইছেন!”
    সুবহানাল্লাহ!!! আল্লাহর রাসূলের সময় থেকে কোনো ওজর ছাড়া মেয়েদের মুখমন্ডল ঢাকাকে পর্দার অংশ হিসাবে পালন করা হয়ে আসছে। তিনি সেটাকে বললেন “ভন্ডামি আর গুন্ডামি”! এছাড়াও তিনি আমার শিক্ষাগত ও পেশাগত যোগ্যতার বিষয়েও ব্যক্তিগত আক্রমণ করতে ছাড়েন নি। আল্লাহ তাকে রহম করুন।
    তিনি বলেন কুরআন ছাড়া অন্য কিছু তিনি মানেন না। আমাকে সূরা মু’মিন পড়ে দেখতে বললেন। কোনো ইমাম, কোনো মুফতি-মুহাদ্দিস কারোর কথাই তার কাছে গ্রহণযোগ্য নয়।
    যাই হোক, শেষে বললেন এই ভার্সিটিতে পড়তে হলে ভার্সিটির গেট দিয়ে ঢুকার সময় মুখ খুলতে হবে আর বের হওয়ার আগ পর্যন্ত মুখ ঢাকা যাবে না।
    অগত্যা অ্যাত্তগুলা টাকা গচ্চা দিয়ে ভর্তি বাতিলের জন্য অ্যাপ্লিকেশন করে ভার্সিটি ছেড়ে দেয়া। আলহামদুলিল্লাহ, ইসলামের একটা বিধান মানার জন্য টাকাগুলো বিসর্জন দেয়ায় একটুও খারাপ লাগে নাই! 
    স্যার, আপনার প্রতি সম্মান রেখে বিনয়ের সাথে বলতে চাই,
    অসংখ্য প্রাইভেট ভার্সিটি আছে যেখানে নিকাব পরা যায়। জাহাঙ্গীরনগরে মাস্টার্স করার সময় দেখেছি অনেক মেয়েরাই হাত মোজা পা মোজা পরে ক্লাস করে। কোথাও নিরাপত্তার অযুহাতে নিকাব নিষিদ্ধ না। স্যার, নকল আইডি কার্ড বানিয়ে মুখ খুলে যে কেউ ভার্সিটিতে ঢুকে অন্যায় করতে পারে। মুখ খোলা রেখে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা যায় না। নিরাপত্তার জন্য সত্যিই কনসার্ন হলে গেটে ফিঙ্গারপ্রিন্ট বা কার্ড পাঞ্চের ব্যবস্থা করা যায়। কিন্তু এসব না করে একজনের ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাত দেয়া যায় না। যদি নিকাব পরা ভার্সিটির জন্য এতই হুমকির বিষয় হয় তাহলে অ্যাডমিশন অফিসের সামনে বড় করে লিখে রাখা হোক “নিকাব পরা নিষিদ্ধ”। তাহলে আমার মত ভুক্তভোগীর সংখ্যা কমবে।
    জনাব,
    অসুখ হলে আমরা “৭ দিনে ডাক্তার হউন” বই পড়ে নিজের চিকিৎসা নিজে করি না। আইনগত জটিলতায় আমরা সংবিধান নিজে পড়ে আইনে লড়ি না। আইন বিষয়ে অনেক স্টাডি করা একজন আইনজীবির সাহায্য নিই। তাহলে ইসলামের কোনো বিষয়ে আমরা কেন মুফতি, মুহাদ্দীস, ফকীহদের দারস্থ হই না? আমরা মেডিকেল সায়েন্সের কোনো বইতে পেলাম দুধ স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ভাল। এটা পড়েই যদি আমরা ফাইনাল ডিসিশন নিই আর পেট খারাপ হওয়া কোনো লোককেও সকাল-বিকাল দুধ খাওয়াই তাহলে কি সেটা ভাল হবে? আমরা আরবি ভাষা, আরবি সাহিত্য, আরবি ব্যকরণ না জেনে শুধু কুরআনের অনুবাদ পড়েই যদি মাসআলা বা সিদ্ধান্ত দেয়া শুরু করি তাহলে সেটা পেট খারাপ হওয়া রুগিকে দুধ খাওয়ানোর মত বিপজ্জনক কাজ হতে পারে।
    বিশ্ববিদ্যালের মত একটা জায়গা, যেখানে মুক্ত চিন্তার বিকাশ ঘটবে। সেখানে একজন ছাত্রীর পোষাক নির্বাচনের মত ব্যক্তিগত স্বাধীনতা ও নাগরিক অধিকারে হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে। কোনো স্টুডেন্ট অশালীন, দেশ ও জাতীয় সংস্কৃতির সাথে সাংঘর্ষিক নয় এমন কোনো পোষাকের ব্যাপারে ভার্সিটির নিষেধাজ্ঞা কখনোই কাম্য নয়। আশা করব অলিখিত এই অমানবিক রুলস থেকে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সরে আসবেন এবং পর্দানশীন মেয়েদেরকে নিকাব পরার অধিকার বলবৎ রাখবেন।
    "DOESN'T RECOMMEND" PRIME UNIVERSITY: https://web.facebook.com/Primevarsity/
    সংযুক্তিঃ
    1. অ্যাপ্লিকেশনের কপি (যেটা ভার্সিটি কর্তৃপক্ষ রিসিভ করেছে) - https://drive.google.com/…/1rTSWbsOcfJILudYzNTOeNxsrBuY2E0dS
    2. আগ্রহী পাঠকের জন্য ইসলামে নারীদের মুখ ঢাকার বিধান সম্পর্কে এই সাইটে কিছু দালিলিক তথ্য রয়েছে। সাইটটি নির্ভরযোগ্য।
    https://islamqa.info/…/ruling-on-covering-the-face-with-det…


    No comments

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad

    ad728